আপগ্রেডেশনের দাবিতে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষকদের শহীদ মিনারে অবস্থান


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২৮, ২০২০, ৮:২০ পূর্বাহ্ন / ১২৫
আপগ্রেডেশনের দাবিতে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষকদের শহীদ মিনারে অবস্থান

ক্যাম্পাস ডেস্কঃ

পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) সাধারণ শিক্ষকবৃন্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে।
প্রাপ্যতার তারিখ থেকে আর্থিক সুবিধাসহ আপগ্রেডেশনের দাবিতে এবং দীর্ঘদিন ধরে পদোন্নতি বঞ্চিত শিক্ষকদের আপগ্রেডেশন নিয়ে টালবাহানা ও অহেতুক সময় ক্ষেপণের প্রতিবাদে এই অবস্থান কর্মসূচি পালন করে সাধারণ শিক্ষকবৃন্দ।
আজ রবিবার (২৭ ডিসেম্বর) দুপুর ১২ থেকে ১টা পর্যন্ত (পূর্বঘোষিত দিন একঘন্টা অবস্থান কর্মসূচি অনুযায়ী) বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে সাধারণ শিক্ষকবৃন্দ।

অবস্থান কর্মসূচিতে প্রায় ১৫০ জন শিক্ষক অংশ নেয়। করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় এক শিক্ষক কর্মসূচিতে অংশ নিতে পারে নি। এসময় শিক্ষকরা তাদের দাবি দাওয়া নিয়ে বক্তব্য দেয়। তারা বলেন, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা আন্দোলন করবো। দেশের অন্য কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে আপগ্রেডেশনের সমস্যা নেই। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর নামে নামাঙ্কিত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হয়ে ও আমরা পদোন্নতি বঞ্চিত ও অবহেলিত। উপাচার্য মহোদয় আমাদের দাবির সাথে একমত হবেন আশা করি।

এছাড়াও তারা আরও বলেন, মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা আন্দোলনের বিষয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পৌঁছে দিবো। যাতে, প্রধানমন্ত্রী বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হতে পারে। এতে দ্রুত একটা সমাধান আসবে বলে তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এর আগে গত ২৩ ডিসেম্বর আপগ্রেডেশনের দাবিতে বশেমুরবিপ্রবি সাধারণ শিক্ষকবৃন্দ মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করে। মানববন্ধনে পরবর্তী কর্মসূচি ২৭-২৯ ডিসেম্বর প্রতিদিন একঘন্টা শহীদ মিনারের পাদদেশে অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা দেন শিক্ষকবৃন্দ।

উল্লেখ্য, বশেমুরবিপ্রবির ১৫০-২০০ জন শিক্ষক ৩ বছরের বেশি পদোন্নতি বঞ্চিত হচ্ছেন। এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের সাথে আলোচনা করা হলে উপাচার্য পদোন্নতির আশ্বাস দেয়। কিন্তু পরবর্তীতে কোনো সমাধান না হলে সাধারণ শিক্ষকবৃন্দ মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করে।