ধুনটে নব‌নির্বা‌চিত কাউন্সিলর সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা, সাবেক সেনাসদস্য গ্রেপ্তার


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ১, ২০২১, ৮:১৪ অপরাহ্ন / ৫৬১
ধুনটে নব‌নির্বা‌চিত কাউন্সিলর সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা, সাবেক সেনাসদস্য গ্রেপ্তার

ফজ‌লে রাব্বী মানু, ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি:
তৃতীয় ধাপে বগুড়ার ধুনট পৌর নির্বাচনে ৪ নম্বর ওয়ার্ডের পরাজিত ও বিজয়ী কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মাঝে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় পরাজিত প্রার্থীর সমর্থক সাবেক ছাত্রলীগ নেতা আল মাসুদ বাদী হয়ে ধুনট থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। ওই মামলায় নবনির্বাচিত কাউন্সিলর আলী আজগর মান্নানসহ ৬ জনকে আসামী করা হয়েছে।

সোমবার দুপুরের পর এই মামলার এজাহার ভুক্ত আসামী সাবেক সেনাসদস্য ধুনট পৌর এলাকার অফিসার পাড়ার আব্দুস সোবহানকে (৬০) গ্রেপ্তার করে বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। এরআগে রোববার রাতে ধুনট থানায় মামলা দায়ের হয়।

জানা গেছে, গত ৩০ জানুয়ারী বগুড়ার ধুনট পৌরসভায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে ৪ নম্বর ওয়ার্ডে রাসেল মাহমুদ কমল (উট পাখী) ও আলী আজগর মান্নানসহ (পাঞ্জাবী) ৪ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। নির্বাচনে আলী আজগর মান্নান (পাঞ্জাবী) বিজয়ী হন।

এদিকে শনিবার (৩০ জানুয়ারী) রাত ৮টার দিকে পরাজিত প্রার্থীর সমর্থক অফিসার পাড়ার আল মাসুদ ও বিজয়ী প্রার্থীর সমর্থক আব্দুস সোবহানের ছেলেদের সাথে নির্বাচনী বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে মারপিটের ঘটনা ঘটে। এতে বাদী প‌ক্ষে‌র আল মাসুদ (৩৮) ও শাহিনূর বেগম (২৫) ও বিবাদী পক্ষের জলি খাতুন (৪০), মেঘনা খাতুন (৩৫), রোকেয়া বেগম (৫৫), আহত হয়। আহতরা ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা নিয়েছেন।

এ বিষয়ে ধুনট পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত কাউন্সিলর আলী আজগর মান্নান বলেন, নির্বাচনে পরাজিত হয়ে রাসেল মাহমুদ কমলের সমর্থক আল মাসুদ বাদি হয়ে আমিসহ আমার সমর্থকদের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। তাদের কোন মারধর করা হয়নি।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, নির্বাচন পরবর্তী সহিংস ঘটনায় মামলার এক আসামীকে গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ মামলার অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।