ধুনটে ভাঙনের ঝুঁকিতে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ তীরবর্তি ১০০ মিটার এলাকা নদীগর্ভে বিলীন


প্রকাশের সময় : মে ২৬, ২০২১, ৭:৫৩ পূর্বাহ্ন / ১৭১
ধুনটে ভাঙনের ঝুঁকিতে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ তীরবর্তি ১০০ মিটার এলাকা নদীগর্ভে বিলীন

ফজলে রাব্বী মানু, ধুনট (বগুড়া) প্রতি‌নি‌ধিঃ

বগুড়ার ধুনট উপজেলার যমুনা নদীতে ভাঙনের তীরবর্তি এলাকার ১০০মিটার নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। ভাঙনের ঝুঁকিতে পড়েছে যমুনা নদীর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও নদী তীরবর্তী এলাকার বসতবাড়ি। মঙ্গলবার ভোর থেকে পানির প্রবল স্রোতে ঘূর্ণাবর্ত সৃষ্টি হয়ে ভান্ডারবাড়ি বাজারের সামনে এই ভাঙন শুরু হয়।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়নের যমুনা নদীতে গত কয়েক দিন ধরে পানি বাড়তে শুরু করেছে। পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে প্রবল স্রোত নদীর বুকে ঘূর্ণাবর্ত সৃষ্টি করেছে। এই ঘূর্ণাবর্তে পড়ে ভান্ডারবাড়ি বাজারের সামনে নদীর তীরে ভয়াবহ ভাঙন শুরু হয়। ভাঙনে আজ মঙ্গলবার ভোর থেকে তীর সংরক্ষণ প্রকল্প এলাকার প্রায় ১০০মিটার অংশ বিলীন হয়েছে নদীতে। বিকেল ৪টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সেখানে নদী ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। নদী ভাঙন অব্যাহত থাকায় যমুনা তীরের মানুষের মাঝে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

উপজেলার ভান্ডারবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আতিকুল করিম আপেল বলেন, যমুনা নদীতে ভাঙন শুরু হয়েছে। দ্রুত ব্যবস্থা না নিলে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ও নদী তীরবর্তী বসতবাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। নদী ভাঙনের বিষয়টি পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে।

বগুড়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) উপসহকারী প্রকৌশলী আসাদুল হক বলেন, যমুনা নদীর ভাঙনের বিষয়টি স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন। খোঁজখবর নিয়ে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।