মাতৃবন্দনা- তানভীর হোসেন অপু


প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২৩, ২০২০, ৬:৫৬ অপরাহ্ন / ২৬৮
মাতৃবন্দনা- তানভীর হোসেন অপু

মা,সে তো জন্মের পর প্রথম ভালোবাসার নাম,
কত আবেগ কত সহস্র স্মৃতি রোমন্থন করি বারংবার।
তোমার পরশে সিক্ত আমি ধন্য আমার প্রাণ,
একান্ত নিশিত দিবায় তোমার কল্পনায় হারিয়ে যাই।

মাগো, কতদিন হলো দেখিনা তোমায়
শুনিনা তোমার প্রলাপের বাণী।
কতদিন তোমার মায়াভরা শীতল আঁখি কল্পনাতে একেছি,
ভুবন ভোলানো মধুমাখা হাসি চেয়ে চেয়ে দেখেছি।
আর নয়নখানি জুড়াতো আমার শীতল পরস পেত অন্তরযামি।

দীপ্ত কন্ঠের আবেশী বাণী সর্বত্র ধ্বনিত হয় আমার কর্ণকুহুরে
সেথায় থাকে না কোন মান-অভিমান, অভিযোগ বাণী
থাকবে কিছু নিত্য দিনকার উপদেশের বাড়াবাড়ি।

মা, তোমার খোকা আজ অনেক দূরে, তুমিও তো আস না আমার পাণে।
প্রতিটি নিশিতে তোমার গল্প শুনে,
তোমার জাদুকরী হাতের পরশে ঘুম পাড়ানীর গল্পের আমি হতাম রাজকুমার রাধানাথ।
আজও কভু ভুলি নাই কল্পনায় রাধানাথ নাম,
শুধু সবার অলক্ষ্যে চক্ষুর অশ্রু দু-একফোটা ফেলি।
কোথায় মা তুমি?

মা, তোমার শরীরের নারীত্বের গন্ধ, আমার ভালোবাসার মূলমন্ত্র
যা আমাকে করেছে কোমল, উদ্দমী আর পরিশ্রমী।
প্রতিটি পদক্ষেপে অনুভবের সুপ্ত অজানা প্রতিচ্ছবি,
সে যে তুমি।

মা,তুমি আমার ভাবনার জগতের বদ্ধ তালার চাবিকাঠি,
তোমার অনুভব আমার প্রতিটি শিরা উপশিরায় যপি,
তাইতো মা, তোমাকে বারবার ভাবি।

মা, তুমি প্রতিবারই বলতে এবার পূজোয় বাড়ি আসবি কিন্তু খোকা,
আমি ক্ষুদ্র বাতায়নের রেলিং ধরে প্রতিক্ষায় থাকবো তোর পথ পাণে
কখন আসবে আমার খোকা।
আমার শূন্য বুকেতে
হৃদয়ের কত ব্যথা,
কত লুকায়িত কথা হবে তোরে বুকে জড়িয়ে।

যেইবার বলতাম মাকে-
এবারটি আসা হবে নাকো,
মুখটি গোমড়া করে তুমি লিখতে অভিমানের সুরে
আমি তোর কে রে? কেন আসবি,কেন আসবি, আমার ক্ষুদ্র গৃহে
বলতাম আমি মাকে অভিমানটা রাখো দেখিনি এবারে,
অনেক অনেক কাজ পড়ে আছে।

বলো দেখি মা, তোমার কি লাগবে এবারের পূজোতে,
হলুদ নাকি সবুজ শাড়ি বলতে ভুলবে না আমারে।
মা বলে, আমার কিচ্ছুটি লাগবে নাকো, আমি দিব্যি ভালোবাসি আছি, তোকে নিয়েই যত যাতনা
পরের ছুটিতে আসবো মা,অনেকটা দিন থাকবো, তখন কিন্তু আবার তাড়াবে না।

তোমার ঐ শাড়ির কোণে মুখ লুকিয়ে অশ্রু-বিসর্জন
আমি কিন্তু সব দেখছি
আমি ভালো আছি মা, তুমি ভালো থেকো
কল্পনার স্মৃতি ভুলে বাস্তবে ফিরে এসো।
জানালার রেলিং ছেড়ে সুবোধ বালিকার মত ঘুমিয়ে পড়ো,
আমি এসে মাথায় হাত বুলিয়ে শোনাব সেই ঘুম পাড়ানীর গল্প নতুন করে।
রাগ করো না মা,
তোমাকে কতটা ভালোবাসি ঠিক বুঝাতে পারবো না।