২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে আসন সংখ্যা অর্ধেক হবে: বশেমুরবিপ্রবি ভিসি


প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ২৮, ২০২০, ১১:২৩ পূর্বাহ্ন / ১৯৫
২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে আসন সংখ্যা অর্ধেক হবে: বশেমুরবিপ্রবি ভিসি

ক্যাম্পাস ডেস্কঃ
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষ থেকে আসন সংখ্যা অর্ধেক করা হবে। সর্বোচ্চ ১ হাজার ৬০০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। গত শিক্ষাবর্ষে আসন সংখ্যা ছিল ৩ হাজার ৭০। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বশেমুরবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ কিউ এম মাহবুব।

তিনি বলেন, ৫৫ একরের এই ছোট বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রচুর শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়েছে। পরবর্তী ভর্তি পরীক্ষা থেকে এ সংখ্যা কমিয়ে আনা হবে। প্রতি বিভাগে ৩৫ থেকে ৬০ জন করে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৬০০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এছাড়া প্রতিটি শ্রেণিকক্ষ আধুনিকায়ন করা হবে। মাস্টার প্লানিংয়ের মাধ্যমে অত্যাধুনিক হল নির্মাণ করা হবে।

একদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোসহ আশেপাশে স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের ব্যবস্থা নেই, শরীরচর্চা কিংবা খেলাধুলারও তেমন ব্যবস্থা নেই। এবিষয়ে উপাচার্য বলেন, শিক্ষার্থীদের স্বল্পমূল্যে স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের ব্যবস্থা অবশ্যই করা হবে। সেজন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে যতদূর সম্ভব ভর্তুকিও দেওয়া হবে। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের যে বড় খেলার মাঠটি রয়েছে, সেটিকে আধুনিকায়ন করার পরিকল্পনা নিয়েছি। ভবিষ্যতে এ মাঠে আন্তবিশ্ববিদ্যালয় টুর্নামেন্টের আয়োজন করা যাবে।

অপরদিকে এক দশক ধরে শিক্ষা-কার্যক্রম চলা এ বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে রয়েছে মাত্র একজন অধ্যাপক। গবেষণা কার্যক্রমেও নেই তেমন অগ্রগতি। এসকল বিষয়ে উপাচার্য ড. একিউএম মাহবুব বলেন, একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রযাত্রার জন্য অধ্যাপকের কোনো বিকল্প নেই। চুক্তিভিত্তিক অধ্যাপক নিয়োগের পাশাপাশি অনলাইনে ক্লাস নিতে পারবেন এমন অধ্যাপকদেরও নিয়োগ দেওয়া হবে। আর গবেষণার দায়িত্ব দেওয়া হবে শুধুমাত্র অভিজ্ঞ শিক্ষকদের। একজন অভিজ্ঞ শিক্ষক যেমন সফলভাবে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারেন তেমনি শিক্ষার্থীদের গবেষণার কাজে দক্ষও করে তুলতে পারেন।

উপাচার্য আরও বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়কে কাজে লাগিয়ে এই অ লের পাশাপাশি বৃহত্তর ফরিদপুরে সাক্ষরতার হার বৃদ্ধিসহ বেকারদের দক্ষ করে গড়ে তোলার জন্য কাজ করবো।