বশেমুরবিপ্রবি’র ২০ শতাংশ ‘ফরিদপুর কোটা’ বাতিলের দাবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি প্রদান


প্রকাশের সময় : ফেব্রুয়ারী ১৭, ২০২১, ২:০৮ অপরাহ্ন / ২১০
বশেমুরবিপ্রবি’র ২০ শতাংশ ‘ফরিদপুর কোটা’ বাতিলের দাবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি প্রদান

ক্যাম্পাস ডেস্কঃ

 
গত ১৫ই ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের ২১ তম বৈঠকে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে “বৃহত্তর ফরিদপুর” এর জন্য ২০% কোটা বরাদ্দ রাখার বিষয়ে প্রস্তাব করা হয়। আর এই প্রস্তাব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর এ বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির অধিকাংশ শিক্ষার্থীরা।

আজ বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারী) এই কোটা বাতিলের দাবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী নাজমুল মিলন ও গণিত বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী রোমিয় রহমান এই স্মারকলিপি প্রদান করেন।

স্মারকলিপিতে শিক্ষার্থীরা জানান, গত ১৫ ফেব্রুয়ারী একাডেমিক কাউন্সিলর সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে ২০ শতাংশ কোটা ফরিদপুর জেলার জন্য বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়। উক্ত কোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের ধারণা, কোটা প্রবর্তনের মূল লক্ষ এবং সংবিধানের ১৯ নং অনুচ্ছেদের সাথে সাংঘর্ষিক। একই সাথে এ ধরনের বৈষম্যমূলক সিদ্ধান্ত ভর্তি বাণিজ্য অসৎ
চর্চার পথকে সুগম করে তুলবে।

অতএব, এই ধরনের বৈষম্যমূলক আঞ্চলিক কোটা বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব দ্রুত বাতিল করা হোক এবং বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী সংশ্লিষ্ট যেকোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণে শিক্ষার্থীদের সংশ্লিষ্টতা নিশ্চিতের দাবি করা হয়েছে উক্ত স্মারকলিপিতে।